গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক সীমারেখা সমূহ

 

চাকরি বাজারের সাধারন জ্ঞান বিভাগে সকলকে স্বাগত। এই বিভাগে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারি সহ সমস্থ প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার উপযোগী জি. কে. বিষয়ে আলোচনা করা হয়ে থাকে। আজকে আমরা বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক সীমারেখা সমূহ নিয়ে আলোচনা করব।

এই বিভাগটি রেল, ব্যাংক, এস এস সি, পি এস সি, ইউপিএসসি, স্কুল সার্ভিস কমিশন, বনদপ্তর, আর্মি, নেভি, এয়ার ফোর্স, পুলিশ, ডব্লিউবিসিএস, মিসলেনিয়াস, ক্লার্কশিপ প্রভৃতি পরীক্ষার জন্য উপযোগী। তাই আপনার সাধারণ জ্ঞানের ভান্ডার কে বৃধি করার জন্য অবশ্যই এই বিভাগটি ফলো করুন।

 

গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক সীমারেখা সমূহ

 

আজকের জি. কে. পাঠে বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক সীমারেখা সমূহ সম্পর্কে আলোচনা করা হল। বিভিন্ন বড় বড় দেশগুলির মধ্যে আন্তর্জাতিক সীমারেখা দেশের সুরক্ষার স্বার্থে সৃষ্টি করা হয়েছে। এই সীমারেখা গুলি প্রত্যেক দেশের নিজস্ব জাতীয় স্বার্থ রক্ষার্থে কাজে আসে ।

প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা গুলিতে এই বিষয় থেকে নানান সময় নানান ধরনের প্রশ্ন এসেছে। যেমন উদাহরণ হিসেবে বলা যায় যে ডুরান্ড লাইন কোন দুটি দেশের সীমারেখা কে আলাদা করে। উত্তর হবে পাকিস্তান এবং আফগানিস্তান । অথবা অন্যভাবে বলা যায় উত্তর কোরিয়া এবং দক্ষিণ কোরিয়াকে বিভক্ত করেছে কোন সীমারেখা । এক্ষেত্রে উত্তর হবে ৩৮  তম সমান্তরাল রেখা । এই ধরনের নানান প্রশ্ন রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার সহ সমস্ত প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় বিভিন্ন সময়ে এসেছে । তাই এই বিষয়টি ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। তাই পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থে আজকে এই বিভাগটি  বিস্তারিত ভাবে  আলোচনা  করা হলো । 

 

সীমারেখা 

সংযোগকারী অঞ্চল

১. ম্যাকমোহন লাইন (১৯১৪])    – ভারত এবং চীন
২. র‍্যাডক্লিফ লাইন (১৯৪৭) – ভারত এবং পাকিস্তান
৩. ডুরান্ড লাইন (১৮৯৩)  – পাকিস্তান এবং আফগানিস্তান
৪. ডানকান প্যাসেজ  – গ্রেট আনদাবন এবং লিটিল আন্দামান
৫. ২৪ তম প্যারালাল লাইন  – ভারত এবং পাকিস্তান
৬. ১৬ তম প্যারালাল লাইন  – অ্যাঙ্গোলা এবং নামিবিয়া
৭. ১৭ তম প্যারালাল লাইন  – উত্তর ভিয়েতনাম এবং দক্ষিণ ভিয়েতনাম
৮. ২০ তম প্যারালাল লাইন  – লিবিয়া এবং সুদান
৯. ২২ তম প্যারালাল লাইন  – ইজিপ্ট এবং সুদান
১০. ৩৫ তম প্যারালাল লাইন  – ভারত এবং মায়ানমার
১১. ৩৮ তম প্যারালাল লাইন  – উত্তর কোরিয়া এবং দক্ষিণ কোরিয়া
১২. ৪৯ তম প্যারালাল লাইন  – আমেরিকা এবং কানাডা
১৩. পক প্রণালী  – ভারত এবং শ্রীলঙ্কা
১৪. মালাক্কা প্রণালী  – সুমাত্রা এবং মালয়েশিয়া
১৫. ম্যাজিনো লাইন  – ফ্রান্স এবং জার্মানি
১৬. ম্যানারহেইম লাইন  – রাশিয়া এবং ফিনল্যান্ড
১৭. হিন্ডেনবার্গ লাইন   – জার্মানি এবং পোল্যান্ড
১৮. অর্ডারনিসে লাইন   – জার্মানি এবং পোল্যান্ড
১৯. ৮  ডিগ্রি চ্যানেল – মিনিকয় এবং মালদ্বীপ
২০. ১০ ডিগ্রি চ্যানেল  – আন্দামান ও নিকোবর

 

 

আরও পড়ুন 

 

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

%d bloggers like this: